পড়াশোনার পাশাপাশি ইনকাম । earn money as a student


আসসালাম ওয়ালাইকুম
How to earn money as a student ? স্টুডেন্ট লাইফ  স্বপ্নের একটা জীবন ।এ জীবনে আমাদের সবারই স্বপ্ন থাকে একটু ভালভাবে চলাফেরা করা মন খুলে টাকা-পয়সা খরচ করা বন্ধু-বান্ধবের সাথে মন খুলে চলাফেরা করা কিন্তু অনেক সময়  লিমিটেড টাকা পয়সা থাকার কারণে সেটা করা হয়ে উঠে না তবে আমরা যদি একটু চেষ্টা করি যে পড়াশোনার পাশাপাশি ইনকাম করব এবং সেটা নিজে মন খুলে খরচ করব  । আজকে আমি মোট ৮ টি বিজনেস আইডিয়া অথবা কেরিয়ার আইডিয়া কিংবা জব আইডিয়া আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব। যেটার মাধ্যমে আপনারা পড়াশোনার পাশাপাশি একটা স্মার্ট ইনকাম করতে পারবেন এবং সেই ইনকাম দিয়ে মন মত খরচ করতে পারবেন বন্ধুদের নিয়ে ঘুরতে পারবেন বেড়াতে পারবেন পাশাপাশি নিজের পড়ার খরচ নিজেই জোগাড় করতে পারবেন। 


১. টিউশন

 স্টুডেন্টদের জন্য এটা একটা কমন পেশা।  আপনি যে ক্লাসে পড়েন তার নিচের ক্লাসে স্টুডেন্টকে পরিয়ে একটা ভালো মানের ইনকাম করা সম্ভব।  গণিত, ইংরেজি এবং বিজ্ঞান এই তিনটি বিষয়ে সাধারণত টিউশনি করানোর জন্য বেশি স্টুডেন্ট পাওয়া যায়। যে ক্লাসের স্টুডেন্ট আপনি পড়াতে পারবেন শুধুমাত্র সেই স্টুডেন্টদের কে পড়ানোর জন্য নিবেন তাহলে আপনি পড়িয়ে মজা পাবেন এবং আপনার সুনাম হবে।  নিজের পড়াশোনার চাপ কম যে সময়টাতে সেই সময়টাতে ছাত্র পড়ানোর চেষ্টা করবেন।

স্টুডেন্ট লাইফে প্রায় প্রত্যেকটা স্টুডেন্ট এই পেশার সাথে যুক্ত থাকে।  এটিই সবচেয়ে সহজ মাধ্যম অর্থ উপার্জন করার জন্য বিশেষ করে যারা স্টুডেন্ট লাইফ অতিক্রম করছে।  এ কাজটি সহজ এই কারণে যে, যারা স্টুডেন্ট লাইফ অতিক্রম করছে তারা পড়াশোনাটাকে চর্চার মধ্যে রেখেছে ফলে অন্যকে পড়ানো তার জন্য সবচেয়ে সহজ একটি কাজ। যদি আপনি পড়াশোনার পাশাপাশি ইনকাম করতে চান তবে এই পদ্ধতিটি বেছে নিতে পারেন আপনি ৪অথবা ৫ জন স্টুডেন্ট জোগাড় করে তাদেরকে পড়াতে থাকুন পাশাপাশি আপনার পড়াশোনা চালিয়ে যেতে থাকুন। ইনশাল্লাহ এখান থেকে একটা ভালো ইনকাম হবে যেটা দিয়ে আপনি আপনার পড়াশোনা চালাতে পারবেন এবং পাশাপাশি আপনার নিজের পকেট খরচ চালাতে পারবেন।


২. ফটোগ্রাফি

 যদি আপনি আমাকে প্রশ্ন করেন how to earn money as a student তাহলে আমি বলব, ফটোগ্রাফি এমন একটা পেশা যেটার মধ্যে অনেক স্মার্টনেস থাকে আপনি নিজেকে স্মার্ট হিসেবে সবার সামনে তুলে ধরতে পারবেন পাশাপাশি আপনি একটা হ্যান্ডসাম ইনকাম করতে পারবেন। এখনকার সময়ে ফটোগ্রাফের উপরে মানুষের একটা শক্তি চলে এসেছে যে কোন বিবাহ অনুষ্ঠান অথবা পার্টি ইত্যাদি অ্যারেঞ্জ করতে গেলে ফটোগ্রাফারের চাহিদা রয়েছে।  ফটোগ্রাফারদের খুঁজতে থাকে সকলেই।  তাই ফটোগ্রাফাররা বেশ মোটা অংকের অর্থ তাদের কাছ থেকে নিয়ে নেয় কারণ  দাঁতের ভেতর অনেক ক্রিয়েটিভিটি থাকে অনেক  সুন্দর করে ফটোগুলো ক্যাপচার করে তো আপনি চাইলে তাদের মত করে একজন  অবসরকালীন ফটোগ্রাফার হতে পারেন। যেটা করার মাধ্যমে আপনি আপনার পড়াশোনার পাশাপাশি একটা ভালো ইনকামের পথ বের করতে পারবেন।

পার্টটাইম ফটোগ্রাফার হওয়ার জন্য আপনার তেমন একটা জিনিসপত্র প্রয়োজন হবে না শুধুমাত্র একটা ডিএসএলআর ক্যামেরার প্রয়োজন হয় আর একটা ল্যাপটপ অথবা কম্পিউটারের প্রয়োজন হতে পারে । এছাড়া আপনাকে ফটোশপের বেসিক টিউটোরিয়াল গুলো দেখে নিতে হবে । শুধুমাত্র কিভাবে ইমেজ রেডি করতে হয় বা একটা ডিএসএলআর ছবি তোলার পর সেটাকে কম্পিউটারের মাধ্যমে কিভাবে অ্যাট্রাক্টিভ করে তুলতে হয় এটা আপনাকে  শিখে নিতে হবে। এটা খুব কঠিন কোন কাজ নয় আপনি এক   সপ্তাহ চর্চা করলে আপনি এটাকে শিখে নিতে পারবেন ।

স্মার্টফোনগুলোতে ছবি তোলার ও বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে সেটাকে অ্যাট্রাক্টিভ করে তুলতে পারি ঠিক তেমনিভাবে কম্পিউটারে ফটোশপের মাধ্যমে কিছু কিছু টুল ইনস্টল করে নিলে আপনি মুহূর্তের মধ্যেই আপনার ফটো গুলোকে একদম অ্যাট্রাক্টিভ করে তুলতে পারবেন।  আপনার ক্লায়েন্টরা খুব বেশি পছন্দ করবে। তো আপনি যখন একটা ডিএসএলআর কিনবেন এবং টিউটোরিয়াল দেখে কিছু শিখবেন তখন আপনি চাইলে একটি ফেইসবুক পেইজ ক্রিয়েট করে নিতে পারেন যেটার মাধ্যমে আপনি আপনি আপনার বন্ধুর কাছে আপনার কাজের খবরটা শেয়ার করতে পারেন যে আপনি ভালো ছবি তুলতে পারেন । প্রয়োজনে আপনি নিজের ভালো ভালো ছবি তুলে সেখানে ছবির উপরে আপনার প্রতিষ্ঠানের নাম দিয়ে দিলেন সাথে মোবাইল নাম্বার ফোন নাম্বারটা দিয়ে দিলেন তাহলে আপনার গ্রাহক সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকবে এবং  একটা সময় আপনি বড় ধরনের একজন ফটোগ্রাফার হতে পারবেন।  আপনার পার্ট টাইম জব টি একসময় ফুল টাইম জব এ পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


৩.  ইউটিউব


If you want to earn money as a student then you can start YouTube.আমরা এখন প্রায় সকলেই জানি যে ইউটিউব থেকে একটা স্মার্ট ইনকাম করা যায় ।  আপনি যে বিষয়ে দক্ষ সেই বিষয়টা সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও বানিয়ে তা আপনি ইউটিউবে আপলোড দিয়ে সেখান থেকে ইনকাম করতে পারেন।  হতে পারে আপনি বিজ্ঞান বিষয়ে ভালো জানেন তাহলে বিজ্ঞান বিষয়ে আপনি স্টুডেন্টদেরকে অনলাইন লার্নিং ভিডিও বানিয়ে আপলোড দিতে পারেন, আপনি ভাল রান্না করেন, আপনি ভাল  ক্রাফট এর কাজ জানেন হাতের কাজের পটলে ধরনের নানান কাজ সম্পর্কে আমরা অনেকেই অভিজ্ঞ হয়ে থাকে।  তো আপনি যে বিষয়টাতে অভিজ্ঞ সেই বিষয়ের উপর ভিডিও বানিয়ে ইউটিউবে আপলোড দিতে পারেন। আমাদের দেশে প্রচুর তরুণ ইউটিউবার রয়েছে যারা পড়াশোনার পাশাপাশি এই কাজটা করছে।  আপনি যদি পড়াশোনার পাশাপাশি ইনকাম করতে চান তাহলে আপনি তাদের দলে যোগ দিতে পারেন। 
 ইউটিউবে চলে না এমন কোন ভিডিও নেই প্রায় প্রত্যেক ক্যাটাগরির ভিডিও ইউটিউবে চলে যদি আপনি ভাল কোয়ালিটির কনটেন্ট বানাতে পারেন।


৪. ব্লগিং

পড়াশোনার পাশাপাশি ইনকামের চতুর্থ উপায় হচ্ছে ব্লগিং বা অনলাইনে লেখালেখি করা।  এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া যাবে যারা লেখালেখি করতে পছন্দ করে। সমসাময়িক বিষয়গুলো নিয়ে লেখালেখি করতে পারেন এছাড়া আপনি নিজে যে বিষয়টিতে দক্ষ সেই বিষয় নিয়ে লেখালেখি করতে পারেন আর লেখালেখি করার মাধ্যমে আপনি ইনকাম করতে পারবেন । এর জন্য প্রয়োজন হবে একটি ওয়েবসাইট  ওয়াডপ্রেস অথবা  ব্লগার যেকোনো একটি প্ল্যাটফর্ম নির্বাচন করে আপনি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করে সেখানে আপনি আপনার লেখাগুলো প্রকাশ করেন । এর মাধ্যমে একটা ভালো ইনকাম করতে পারবেন । ওয়েবসাইটের মাধ্যমে লেখালেখি করে কিভাবে ইনকাম করতে হয় সে সম্পর্কে জানতে চাইলে আপনি ইউটিউবে সার্চ দিয়ে সেখান থেকে ধারণা পেয়ে যাবেন কিভাবে ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অর্থ উপার্জন করতে হয় ।


৫.  ওয়েবসাইট তৈরি করা বা ডিজাইন করা

এখন এই কথাটা বললে আপনার অনেকের মাথায় এটা চলে আসবে যে ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে তো অনেক কোডিং শিখতে হয়।  কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেস সফটওয়্যার এর মাধ্যমে আপনি কোন রকম কোডিং নলেজ ছাড়াই খুব সহজে ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন । বিশ্বে এখন প্রচুর ওয়েবসাইটে ডিমান্ড রয়েছে আর বাংলাদেশে প্রচুর ওয়েবসাইট ডিজাইনার রয়েছে যারা ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে ওয়েব ডিজাইন করে সেটা ক্লায়েন্টদেরকে করছে এবং সেখান থেকে হাজার হাজার ডলার ইনকাম করছে। তো যদি আপনিও পড়াশোনার পাশাপাশি একটি হ্যান্ডসাম ইনকাম করতে চান তবে আপনি ওয়েব ডিজাইন অথবা ওয়েবসাইট তৈরীর ব্যবসাটি করতে পারেন।

ফাইবার, ফ্রিল্যান্স, অথবা বাংলাদেশে কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে যেটার মাধ্যমে ওয়েবসাইট তৈরি করে দেওয়ার জন্য ক্লায়েন্ট খুঁজে পাওয়া যায়। যাদের মাধ্যমে আপনি ক্লায়েন্টদেরকে ওয়েবসাইট তৈরি করে দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন। কিভাবে ওয়েবসাইট ডিজাইন শিখতে হয় সে সম্পর্কে আপনি ইউটিউবে সার্চ দিতে পারেন।  মাত্র একটা মাত্র একমাস সময় দিলে কিন্তু আপনি ওয়ার্ডপ্রেস এর মাধ্যমে কিভাবে প্রফেশনাল মানের ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় সেটা শিখে নিতে পারবেন । এবং এই একটা মাস অপেক্ষা করে আপনি কিন্তু খুব সহজেই একটা ভালো মানের ভালো এমন টেন অর্থ ইনকামের উপায় পেয়ে যাবেন  যেটা আপনার স্টুডেন্ট লাইফের জন্য অনেক বেশি উপকারী হবে।  যেখান থেকে আপনি খুব ভালো একটা ইনকাম করতে পারবেন এবং খুব সুখে শান্তিতে স্টুডেন্ট লাইফটা অতিক্রম করতে পারবেন।


৬. গ্রাফিক ডিজাইন

গ্রাফিক ডিজাইন খুবই খুবই একটা ডিমান্ডিং কাজ যেটা আপনি আপনার স্টুডেন্ট লাইফ শুরু করে দিতে পারেন এবং এখান থেকে আপনি ভাল ইনকাম করতে পারবেন। গ্রাফিক ডিজাইন কথাটি শুনে যদি অনেকেই ভয় পেয়ে যান যে এটা তো অনেক কঠিন কাজ তাহলে কিন্তু হবেনা আপনি প্রাথমিক লেভেলের কিছু কাজ শিখেও কিন্তু এখান থেকে ইনকাম করতে পারবেন। Freelancer.com fiber.com  আপওয়ার্ক.com ওয়েবসাইটগুলোতে খুবই বেসিক লেভেলের কাজ করেও অনেকে সফলতা পেয়েছেন। আপনি চাইলে ফেসবুক ব্যানার তৈরি করে দিতে পারেন ফেসবুক পেজ এর ব্যানার গ্রুপের ব্যানার,  ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ,  ছবি রিটাচ করা,  ইউটিউব  চ্যানেলের থাম্বনেইল তৈরি  এ ধরনের ছোট ছোট কাজ করে ভালো ইনকাম করা যায়।

যেগুলো আপনি করিম সহজেই অনেক ভালো মানের ইনকাম করতে পারবেন। পড়াশোনার পাশাপাশি যদি ইনকাম করতে চান তবে আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ শিখে নিতে পারেন তিন থেকে চার মাস সময় দেয়া আপনি কাজটা শিখে নিতে পারবেন যদি একটা সম্পূর্ণ চর্চার ওপর নির্ভর করে আপনি যত চর্চা করবেন যত প্র্যাকটিস করবে তত আপনি গ্রাফিক ডিজাইনে ভালো হয়ে উঠবেন প্রাথমিক অবস্থায় পার্টনার হিসেবে কাজটা করতে থাকুন একটা সময় আপনার এই কাজেও ফুলটাইম সময় দিয়ে প্রচুর ইনকামের ব্যবস্থা করতে পারবেন। স্টুডেন্ট লাইফ শেষ করে যখন ক্যারিয়ার লাইভে যাবেন তখনও এটা আপনার কাজে লাগবে।


৭. ভিডিও এডিটিং

 ভিডিও এডিট করে ইনকাম করতে পারবেন । বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দেশি-বিদেশি ক্লায়েন্টের কাছ থেকে ভিডিও নিয়ে সেগুলো করে দিতে পারবেন। এছাড়াও আপনি ভিডিও এডিট এর কাজ শিখে নিজের একটি ইউটিউব চ্যানেল পরিচালনা করতে পারবেন। নিজের ইউটিউব চ্যানেল পরিচালনা করার পাশাপাশি আপনি অন্যের কাজ করে দিও অর্থ উপার্জন করার একটা দারুণ উপায় বের করতে পারবেন।  অনেক বড় বড় ইউটিউবার রয়েছে যাদের হাতে পর্যাপ্ত সময় থাকেনা ভিডিও এডিট করার জন্য ।  তাই তারা অন্যদের কাছ থেকে ভিডিও এডিটিংয়ের কাজ ঠিক করিয়ে নেয়।

 এছাড়া অনেক সময় মুভির সাবটাইটেল তৈরি করা টিভি সিরিয়ালের সাবটাইটেল তৈরি করা এধরনের প্রচুর কাজ পাওয়া যায় । ছোটখাটো ভিডিও ইন্ট্রো তৈরি করার প্রচুর কাজ রয়েছে। ভিডিও এডিট এর কাজ শিখে আপনি একজন ভিডিওগ্রাফার এর কাজ করে দিতে পারবেন।  এছাড়া নিজেও ভিডিওগ্রাফির কাজটি করতে পারেন।  বাংলাদেশের বিভিন্ন বিবাহ অনুষ্ঠান জন্মদিনের অনুষ্ঠান সভা-সমাবেশে ভিডিওগ্রাফারদের বেশ চাহিদা রয়েছে। তাই এই বিবাহ অনুষ্ঠান সভা-সমাবেশ ওয়াজ মাহফিল গুলোকে লক্ষ করে আপনি ভিডিওগ্রাফির কাজটি শুরু করে একটা ভালো ইনকামের পথ বের করতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।


৮. প্রোডাক্ট সেল

বর্তমানে মানুষ কর্ম ব্যস্ততার কারণে অনলাইনে কেনাকাটা করতে আগ্রহী হয়ে উঠছে।  অনলাইনে প্রোডাক্ট সেল করেও একটা ভালো ইনকামের পথ বের করা সম্ভব।  বিভিন্ন হোলসেল মার্কেট থেকে পণ্য কিনে এনে সেগুলো আপনি ঘরে বসে অনলাইনে মাধ্যমে বিক্রি করতে পারবেন।  ফেসবুক খুললেই এধরনের প্রচুর পেজ পাওয়া যায় যারা ফেসবুক লাইভে এসে পন্য বিক্রি করে।  তো আপনি তাদের মতো করে হোলসেল থেকে প্রোডাক্ট কিনে এনে সেগুলো অনলাইনে বিক্রির ব্যবস্থা করতে পারেন।

 যদি প্রোডাক্ট কেনার ক্ষেত্রে আপনার কোনো দুর্বলতা থাকে তাহলে  রিসেলিং বিজনেস করতে পারেন। যদিও রিসেলিং বিষয়টি আমাদের দেশে নতুন তবে এটার মাধ্যমেও ভালো ইনকাম করা সম্ভব।  এটা এমন একটা পদ্ধতি যেখানে আপনি অন্যের প্রোডাক্ট বিক্রি করে দেওয়ার দায়িত্ব নেবেন।  কোন কোম্পানির পক্ষ থেকে নির্দিষ্ট দামে তাদের কাছ থেকে চুক্তিবদ্ধ হয়ে তার চেয়ে বেশি দামে বিক্রি করার পদ্ধতি। রিসেলিং এ আপনাকে কোন প্রোডাক্ট কিনতে হবে না যাদের কাছ থেকে প্রোডাক্ট নেবেন তারা একটা দাম বলে দেবে তারচেয়ে যত বেশি বাড়িয়ে বিক্রি করতে পারেন সেটাই আপনার লাভ। আমাদের দেশে shopup নামে একটি নতুন প্রতিষ্ঠান চালু হয়েছে যারা এই সুবিধাটি দিচ্ছে।

পড়াশোনার পাশাপাশি ইনকাম । earn money as a student পড়াশোনার পাশাপাশি ইনকাম । earn money as a student Reviewed by shorolmanush on October 12, 2019 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.