বর্তমান বাজারের সাথে তাল মিলিয়ে জেনে নিন মার্কেটিং টিপস!


একটি ব্যবসা সফলভাবে পরিচালনা করতে গেলে তার সিংহভাগ নির্ভর করে আপনি কিভাবে পণ্যর মার্কেটিং এবং নিজেকে বিক্রয় করছেন। নিম্নলিখিত ৬টি মার্কেটিং টিপস আপনাকে আরও বিক্রয় করতে, এবং কম অর্থ অপচয় করতে সহায়তা করতে পারে।

১.সুবিধা গুলো বিক্রয় করুন ও তুলনা বন্ধ করুন।

আপনি কিভাবে নিজের মার্কেটিং করছেন যা অন্য সবার থেকে আপনাকে আলাদা করবে, সে বিষয় গুলো হাইলাইট করুন। নিচের এই তিনটি বিষয়ের মাধ্যমে আপনি তা করতে পারেন,

-আপনি জানতে হবে কিভাবে মুল্য নির্ধান করে, তাই তুলনা বন্ধ করুন।

-আপনার গুনগত মান বৃদ্ধি করুন যতটুকু সম্ভব।

– অন্যরা যা প্রস্তব দেয় আপনি আরও ভাল মানের প্রস্তাব দিন।

সুতরাং আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সফলতা নির্ভর করে আপনি কিভাবে নিজেকে অন্য সবার চেয়ে ভিন্নভাবে বিক্রয় করছেন। যেমন আপনি এইটা বলবেন না যে, আপনি অন্য সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে কতটা সস্তায় পণ্য বিক্রি করছেন, বরং এইটা বলুন কতটা গুনগত পণ্য সরবরাহ করেন।

২.আপনার গ্রাহকের কথা শুনুন।

একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের গ্রাহক সংখ্যা যত বৃদ্ধি পাবে, সেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পরিধি গ্রাহক সংখ্যার অনুপাতে বৃদ্ধি পাবে। তাই গ্রাহকদের কথা শুনুন তাদের মতামতের মুল্য দিন।

৩.আপনার পণ্য প্রস্তুত হওয়ার আগে বাজারজাত করুন।

কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পণ্য নিখুঁত হওয়া পর্যন্ত পণ্যর মার্কেটিং করতে অপেক্ষা করে। কিন্তু এটা ঠিক না অনেক প্রতিষ্ঠান চায় তাদের বিক্রি বেড়ে যাক এ সম্পর্কে জানেন না, সম্ভাব্য গ্রাহকদের জন্য ব্র্যান্ড সচেতনতা তৈরির জন্য মার্কেটিং না করলে গ্রাহকদের চাহিদা শুন্য ঘরের তালিকায় সীমাবদ্ধ থাকে। তাই সম্ভাব্য গ্রাহকদের টার্গেট করে পণ্য বাজারে আসার আগেই পণ্যর মার্কেটিং করুন।


৪. বৃত্তের বাইরে ভাবুন।

৩০ বছরেরও বেশি আগে কোন পণ্যর মার্কেটিং করার জন্য সার্চ ইঞ্জিন বা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ছিল না। কিন্তু বর্তমানে স্টার্টআপগুলি সৃজনশীল এবং কার্যকর দিক দিয়ে উভয়ই বিনামূল্যে, অনলাইনে মার্কেটিং কৌশলগুলির ব্যবহার করতে পারে। যেমন আপনি চাইলে আপনার পণ্যর অনলাইন ভিডিও মার্কেটিং, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করার মাধ্যমে খুব সহজে গ্রাহকের কাছে দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারেন। সুতরাং সুযোগ বৃদ্ধি পেয়েছে পুরানো চিন্তা বাধ দিয়ে বাক্সের বাইরে চিন্তা করতে শিখুন।

৫.গ্রাহকদের আপনার সম্পর্কে কথা বলার সুযোগ দিন।

ভাল বা খারাপ, আপনার গ্রাহকরা আপনার পণ্য সম্পর্কে কী বলে তা শুনুন। আপনি যদি গ্রাহকদের আপনার কাছে পণ্যর অভিযোগ বা প্রশংসা করার মতো জায়গা না দিয়ে থাকেন তাহলে গ্রাহকেরাও আপনার পণ্য ও প্রতিষ্ঠানের প্রতি আগ্রহ হারাবে। গ্রাহক শ্রেনীর আগ্রহ কমে যাওয়া মানে আপনার প্রতিষ্ঠানের জীবনী শক্তি ধীরে ধীরে ক্ষয়ে যাওয়া। মনে রাখবেন কোন গ্রাহক যদি প্রচন্ড রাগান্বিত হয় তবুও আপনি তার মুল্যবোধের মুল্যায়ন করবেন।

৬. একাধিক কোণ থেকে মার্কেটিং।

গ্রাহক আপনাকে কোন দিক দিয়ে আপনার কথা শুনে তা খুজে বের করুন, গ্রাহক যদি আপনাকে রেডিওতে, সার্চ ইঞ্জিনে,সোশ্যাল মিডিয়াতে,একটি ব্লগের মাধ্যমে শুনে সেই দিক গুলোর মাধ্যমে আপনার পণ্যর বার্তা ছড়িয়ে দিন।

No comments: