ওয়ালটন ফ্রিজের দাম সবচেয়ে কম দামের মধ্যে ২০২১

 
lowest price fridge price in bd

ওয়ালটন ব্রান্ডের  ফ্রিজের দাম ২০২১

আমাদের বাংলাদেশ ওয়ালটন ফ্রিজ বর্তমানে খুবই জনপ্রিয় একটি ব্র্যান্ড । ফ্রিজ বলতেই আমরা ওয়ালটনকে বুঝি।  আজকের আর্টিকেলে বাছাইকৃত 10 টি সেরা ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা প্রকাশ করব। সেই সাথে যেই তালিকা প্রকাশ করবে আশা করছি এগুলো থেকে যেকোন একটা ফ্রিজ নিলে আপনার জন্য ভালো হবে। 20000 টাকার মধ্যে যদি আপনি ফ্রিজ খোঁজেন তাহলে এখানে বেশ কিছু তালিকা দেওয়া হয়েছে । এছাড়াও 30000 টাকার মধ্যে ফ্রিজ কিনতে চাইলে তার তালিকাও এখানে প্রকাশ করা হয়েছে । বেশি কথা না বলে আমরা ওয়ালটনের এর সেরা বাছাইকৃত সেরা ফ্রিজ দেখে নেই । 

ওয়ালটন ব্রান্ডের ফ্রিজের দাম 

ওয়ালটন আমাদের দেশীয় ব্র্যান্ড।  দেশীয় ব্র্যান্ড পেশাবে সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা পেয়ে থাকে।  দেশীয় ব্র্যান্ড হিসেবে পণ্য উৎপাদন করার ক্ষেত্রে তাদের খরচ অনেক কম হয়।  তাই ওয়ালটন আমাদেরকে কম দামে ভালো মানের পণ্য সরবরাহ করতে পারছে।  সাশ্রয়ী মূল্যে ভালো মানের ফ্রিজ কিনতে চাইলে আপনি ওয়ালটনের যেকোনো একটি পছন্দসই মডেলের ফ্রিজ কিনতে পারেন। ওয়ালটনের সর্বোচ্চ বিক্রিত ফ্রিজের তালিকা প্রকাশ করার চেষ্টা করব যাতে আপনার সিদ্ধান্ত নিতে সুবিধা হয়। 

ওয়ালটন ফ্রিজ সম্পর্কে আরো জানতে এখানে চাপুন 

 সর্বনিম্ন দামের ওয়ালটন ফ্রিজের দাম 

আপনি যদি সর্বনিম্ন দামে ওয়ালটনের ফ্রিজ কিনতে চান তাহলে  WALTON WFO-JET-RXXX-XX দেখতে পারেন।  যেহেতু সর্বনিম্ন দামের ফ্রিজ এসি তাই এটার আকার আকৃতিও ছোট। এই ফ্রিজটির ছোট পরিবারের জন্য খুবই উপযোগী একটি ফ্রিজ। ওয়ালটনের ছোট ফ্রিজ রয়েছে তার মধ্যে এটি সবচেয়ে ক্ষুদ্রাকৃতির। এই ফ্রিজটির দাম ধরা হয়েছে 10990 টাকা। এটি একটি 50 লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন ফ্রিজ । 

ওয়ালটন ব্রান্ডের ফ্রিজের দাম সবচেয়ে কম দামের মধ্যে ২০২১

WALTON WFO-JET-RXXX-XX মডেল ফ্রিজ এর স্পেসিফিকেশন এবং দাম 

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFO-JET-RXXX-XX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R134a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220V-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 18.25 kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা: 50 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3

ফ্রিজের মূল্য: 10,990/-   

আরো একটি ছোট ফ্রিজের দাম 

ওয়ালটন ব্লেন্দের ছোট ফ্রিজ গুলোর মধ্যে কম দামের ফ্রিজ রয়েছে তার মধ্যে আমাদের মধ্যে দ্বিতীয় সৃষ্টি হল WALTON WFO-1X1-0101 মডেল। কম দামের মধ্যে এটি মোটামুটি ভালো ।  এই ফ্রিজটির দাম ধরা হয়েছে 13 হাজার পাঁচশো পঞ্চান্ন টাকা।  এটি একটি 93 কেজি ধারণক্ষমতা সম্পন্ন রেফ্রিজারেটর।   ছোট ফ্যামিলি অথবা ব্যক্তিগত ভাবে ব্যবহার করতে চাইলে এটা খুবই কাজের একটি ফ্রিজ।  এছাড়া ফার্মেসিতে ছোটখাটো ফ্রিজ ব্যবহার করতে চাইলেও এটা নেওয়া যায় ।

ওয়ালটন ব্রান্ডের ফ্রিজের দাম সবচেয়ে কম দামের মধ্যে ২০২১

 ওয়ালটন WFO 1X1-0101 মডেল ফ্রিজ এর স্পেসিফিকেশন এবং দাম 

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFO-1X1-0101
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R134a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220V-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 25.2 kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা: 93 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3
  • ফ্রিজের মূল্য: 13,555/-   

এবার জানব মিডিয়াম ফ্রিজের দাম 

মিডিয়াম দামের মধ্যে ফ্রিজ কিনতে চাইলে এখন যেটি দেখাচ্ছি এটি মোটামুটি ভালো হতে পারে । এই ফ্রিজটির মডেল হচ্ছে WFO-1A5-RXXX-XX. ওয়ালটনের এই ফ্রিজটির দাম ধরা হয়েছে 14 হাজার তিনশত টাকা। এই ফ্রিজটির ধারণক্ষমতা 107 লিটার। নিচে এই পেজটির দাম এবং স্পেসিফিকেশন উল্লেখ করা হলো। এটি একটি মিড রেঞ্জের ফ্রিজ তাই এটা থেকে প্রিমিয়াম কোয়ালিটির ফ্রিজের ফ্যাসিলিটিজ পাওয়া সম্ভব নয় । তবে মিডিয়াম প্রাইস এর মধ্যে যে ফ্রিজ গুলো রয়েছে তার মধ্যে ওয়ালটনের এই অনেক ভালো। 

ওয়ালটন ব্রান্ডের ফ্রিজের দাম সবচেয়ে কম দামের মধ্যে ২০২১

ওয়ালটন ফ্রিজের WFO-1A5-RXXX-XX মডেলের দাম এবং স্পেসিফিকেশন

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFO-1A5-RXXX-XX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R134a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220V-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 29.2 kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা: 115 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3
  • ফ্রিজের মূল্য: 14,300/-   

ছোট মিডিয়াম ফ্রিজের দাম নর্মাল এবং ডীপ সহ 

কম দামের মধ্যে একটা ফ্রিজ নিতে চাইলে আপনি ওয়ালটনের WFD-1B6-RXXX এই ফ্রিজটি নিতে পারেন । এই ফ্রিজে  নরমাল এবং ডিপ মোড দুটোই রয়েছে।  যারা উভয়েই ফ্যাসিলিটিজ সহকারে ফ্রিজ নিতে চাচ্ছেন পাশাপাশি দামও সাশ্রয় চাচ্ছেন তাদের জন্য  ভালো পছন্দ হতে পারে। 132 লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন এই রেফ্রিজারেটরের দাম ধরা হয়েছে 18 হাজার 200 টাকা।  যারা এই এই দামের মধ্যে ফ্রিজ নিতে চাচ্ছেন আমি মনে করি এটা অনেক ভালো হবে । চলুন এবার এই ফ্রিজটির স্পেসিফিকেশন এবং অন্যান্য তথ্য গুলো জেনে নেই। 

ওয়ালটন ব্রান্ডের ফ্রিজের দাম সবচেয়ে কম দামের মধ্যে ২০২১

ওয়ালটন ফ্রিজের WFD-1B6-RXXX মডেলের দাম এবং স্পেসিফিকেশন

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFD-1B6-RXXX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R134a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220V-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 42.5 kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা: 132 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3
  • ফ্রিজের মূল্য: 18,200/-   

20000 টাকার মধ্যে ওয়ালটন ফ্রিজ কোনটি 

20000 টাকার মধ্যে ওয়ালটনের ফ্রিজ কিনতে চাইলে বেশকিছু মডেলের ফ্রিজ পাওয়া যায়। এক্ষেত্রে আপনাকে তাদের ওয়েবসাইট থেকে অথবা তাদের মুখ শোরুম থেকে দেখে বুঝে শুনে যে কোন একটা মডেল পছন্দ করে নিতে হবে। 20000 টাকার মধ্যে যে কোন একটা জিনিস পাওয়া যায় তার একটি তালিকা এখানে লেখা হলো। 

  • ব্র্যান্ড: ওয়ালটন
  • মডেল: WFD-1B6-GDEH-XX 
  • ভলিওম: 132 Ltr
  • দাম: Tk. 20,490


  • ব্র্যান্ড: ওয়ালটন
  • মডেল: WFD-1D4-GDEL-XX
  • ভলিওম: 157 Ltr
  • দাম: Tk.20,500

  • ব্র্যান্ড: ওয়ালটন
  • মডেল: WFA-1N3-GDXX-X
  • ভলিওম: 193 Ltr
  • দাম: Tk.20,500

22 হাজার টাকার মধ্যে ওয়ালটন ফ্রিজের দাম 

প্রিমিয়াম কোয়ালিটির রেফ্রিজারেটর কিন্তু চাইলেও আপনি 22 হাজার টাকার মধ্যে ওয়ালটনের ভালো ফ্রিজ পাবেন।  এই রেঞ্জের মধ্যে যে ফ্রিজ গুলো রয়েছেন মোটামুটি গর্জিয়াস মানের রেফ্রিজারেটর।  এখানে 22000 টাকা প্রাইজের মধ্যে যতগুলো ফ্রিজ রয়েছে তার তালিকা দেওয়া হচ্ছে । WFD-1D4-GDEH-XX  মডেলের ফ্রিজ দাম হচ্ছে 21,500 টাকা। এই দামের মধ্যে এটি একটা ভালো মানের রেফ্রিজারেটর কারণ এটা সাইজেও মোটামুটি বড় এবং দামের দিক থেকেও বেশ সাশ্রয়ী। এছাড়াও আরো দুইটা মডেল রয়েছে এই প্রাইস রেঞ্জের মধ্যে যেমন : WFD-1F3-GDEL-XX এবং WFD-1F3-GDEH-XX

25000 টাকার মধ্যে ওয়ালটন ফ্রিজ 

25000 টাকার মধ্যে ফ্রিজ কিনতে চাইলে ওয়ালটনের অথবা অন্যান্য ব্র্যান্ডের ভালো ভালো ফ্রিজ রয়েছে।  অবশ্যই 25 হাজার টাকা দিয়ে কিনতে চাইলে বিভিন্ন মডেলের মধ্যে ডিজাইনের মধ্যে পাশাপাশি ধারণ ক্ষমতার মধ্যে পার্থক্য দেখে ফ্রিজ কিনতে হবে । যদি আপনার ডিজাইন,  ধারণক্ষমতা, দাম ইত্যাদির মধ্যে স্পিসিফিক কোনো পছন্দ থাকে তাহলে সেটা কে প্রাধান্য দিয়েই ফ্রিজ নির্বাচন করতে হবে। এই দামের মধ্যে যতগুলো ফ্রেশ হয়েছে তার মধ্যে এই ফ্রিজটির ডিজাইন আমার কাছে ভালো লেগেছে হয়তো আপনার কাছে ভালো নাও লাগতে পারে। ওয়ালটন WFA-2A3-GDXX-XX  মডেলের ফ্রিজের দাম ধরা হয়েছে 24 হাজার 800 টাকা । 

lowest price fridge price in bd

ওয়ালটন ফ্রিজের WFA-2A3-GDXX-XX মডেলের দাম এবং স্পেসিফিকেশন

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFA-2A3-GDXX-XX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R134a/ R600a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220V-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 45.5 ± 2 Kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা: 176 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3
  • ফ্রিজের মূল্য: 24,800/-  

কম দামে ভালো মানের ফ্রিজের দাম 

আমরা জানি ওয়ালটন একটি দেশীয় প্রতিষ্ঠান যার ফলে তারা অল্প দামে ভালো মানের প্রোডাক্ট সরবরাহ করতে পারে।  ওয়ালটন বাংলাদেশ দীর্ঘদিন যাবৎ সুনামের সঙ্গে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে।  ওয়ালটন প্রতিনিয়ত কোয়ালিটি সম্পন্ন পণ্য উৎপাদন বিপণন করার মাধ্যমে দেশবাসীর মধ্যে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।  দেশীয় বাজার জয় করে ওয়ালটন আন্তর্জাতিক বাজারে তাদের পণ্য বিক্রয় বিপণনের ব্যবস্থা করেছে এবং সে ক্ষেত্রেও তারা ধীরে ধীরে সফলতা অর্জন করছে। 

 অল্প দামে ভালো মানের ফ্রিজ কিনতে চাইলে ওয়ালটন এর বিকল্প হতে পারে না। যেহেতু বাংলাদেশ সরকার দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোকে বিভিন্ন ধরনের শুল্কমুক্ত সুবিধা প্রদান করে তাই সেই দিক থেকে ওয়ালটন কম দামে ভালো মানের প্রোডাক্ট দিতে পারে।  উপরে কিছু কম দামের মধ্যে ভালো মানের ওয়ালটনের তালিকা দেওয়া হয়েছে হয়তো এগুলোর মধ্যে থেকে যে কোন একটি প্রোডাক্ট আপনার পছন্দসই হতে পারে। 

যেহেতু আজকের পোস্টটি শুধুমাত্র কম দামে ভালো ফ্রিজ এর জন্য তাই এখানে শুধুমাত্র কম দামের ফ্রিজ গুলোকেই তালিকাবদ্ধ করা হয়েছে।  তবে সামান্য বাজেট বাড়াতে পারলে এখানে উল্লেখিত ফ্রিজ গুলোর চেয়েও অনেক ভালমানের ভালো কোয়ালিটির এবং ভালো ডিজাইনের ফ্রিজ কেনা সম্ভব। সেক্ষেত্রে আপনার বাজেট যদি 20 হাজার থেকে শুরু করে 30 হাজারের মধ্যে হয় তাহলে এই বাজেটের মধ্যেই একটা ভালো ফ্রিজ কিনতে পারবেন। 

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ছোট বড় মাঝারি সব সাইজের

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম 

ফ্রিজ এর নাম বললে আমাদের বাংলাদেশের সর্বপ্রথম ওয়ালটনের নামটাই মনে পড়ে । ওয়ালটন একটি দেশীয় কোম্পানি পাশাপাশি  স্বল্পমূল্যে ভালো কোয়ালিটির পণ্য সরবরাহ করার কারণে দেশবাসীর কাছে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। যেহেতু অল্প সল্প মূল্যে ভালো মানের পণ্য সরবরাহ করতে পারে তাই আমরা আজকের পোষ্টে  ওয়ালটন ফ্রিজের দাম সম্পর্কে জানব।  কষ্টের টাকায় ভালো জিনিস কিনতে চাইলে অবশ্যই যাচাই-বাছাই করে তারপর কিনতে হবে। এখানে বাছাইকৃত কিছু ওয়ালটনের ফ্রিজ এর তালিকা প্রদান করা হবে অবশ্যই এখান থেকে যেকোনো একটি ফ্রিজ নির্বাচন করার পূর্বে নিজের মতামত এবং অভিজ্ঞতাকে প্রাধান্য দিয়ে তারপর চয়েজ করবেনা । 

কম দামে ওয়ালটন ফ্রিজ সম্পর্কে আমরা ইতিমধ্যে জেনেছি । তাই আজকে আমরা কম দামে, বেশি দামে এবং মাঝারি দামের মধ্যে ওয়ালটন ফ্রিজের মূল্য তালিকা দেখবো।  সেইসাথে ছোট-বড় এবং মাঝারি সাইজের ফ্রিজের দামের তারতম্য এবং মূল্য তালিকা বিস্তারিতভাবে আলোচনা করব। 

ওয়ালটনের বড় সাইজের এবং দামি ফ্রিজ এর তালিকা

বাংলাদেশে বিদেশি ব্র্যান্ডের ভালো ভালো ফ্রিজ পাওয়া যায় পাশাপাশি অন্যান্য ব্র্যান্ডের সাথে পাল্লা দিয়ে ওয়ালটন বিশ্বমানের সেরা প্রযুক্তির ফ্রিজ নির্মাণ করছে।  ওয়ালটনের বড় সাইজের ফ্রিজ গুলো অবশ্যই মানে এবং গুণের দিক দিয়ে দাম বিবেচনা করলে অনেক ভালো । চলুন ওয়ালটনের বড় সাইজের ফ্রিজ গুলোর দাম জেনে নেই। 

  • WFC-3F5-GDNE-XX (Inverter)
  • WFC-3F5-GDXX-XX (Inverter)
  • WFE-3E8-GDXX-XX
  • WFC-3D8-GDEH-DD (Inverter)
  • WFB-2E4-GDSH-XX 

উপরে উল্লেখিত তালিকাগুলো থেকে যেকোনো একটি ফ্রিজ আপনি নিতে পারেন।  এগুলো সবগুলোই বড় সাইজের ফ্রিজ।  এখন আমরা উপরে উল্লেখিত বড় সাইজের পৃন্স গুলো সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। 

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ছোট বড় মাঝারি সব সাইজের

ওয়ালটনের নতুন ফ্রিজ গুলোর মধ্যে WFC-3F5-GDNE-XX (Inverter)  মডেল এর ফ্রিজটি খুবই আধুনিক এবং উন্নত প্রযুক্তি সম্বলিত। যাদের বড় সাইজের ফ্রিজ প্রয়োজন তারা এই পেজটি নিঃসন্দেহে নিতে পারেন । এই ফ্রিজটির দাম এবং স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে এবার জানব । 

এটি একটি দিরেক্ট কূলটায় ফ্রিজ।  আধুনিক এবং নান্দনিক ডিজাইনের কারণে এই ফ্রিজটির দেখতে অসাধারণ লাগে।  দরজাটি কাঁচের তৈরি বলে খুবই প্রিমিয়াম কোয়ালিটি সম্পন্ন মনে হয়।  এই ফ্রিজটির মোট আয়তন হচ্ছে 380 লিটার পাশাপাশি ধারণক্ষমতা হচ্ছে 365 লিটার । এই ফ্রিজটির পরিবেশবান্ধব হওয়ার কারণে পরিবেশের জন্য পাশাপাশি আপনার নিজের জন্য অনেক ভালো হবে। ওয়ালটন বলতেছে এটা আধুনিক ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর প্রযুক্তিতে তৈরি । এই ফ্রিজটির দাম ধরা হয়েছে 40 হাজার 390 টাকা। 

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ছোট বড় মাঝারি সব সাইজের

এবার আমরা WFC-3F5-GDXX-XX (Inverter)  মডেল এল ফ্রিজ সম্পর্কে জানব। অত্যাধুনিক মনোরঞ্জন সমৃদ্ধ ডিজাইনের কারণে আমাদের নির্বাচিত দ্বিতীয় ফ্রিজ চমৎকার হতে পারে। কোয়ালিটির সাথে দামের বেস্ট সামঞ্জস্য রয়েছে এই  ফ্রিজটিতে। এটিতো রয়েছে নতুন ইন্টেলিজেন্ট ইনভেস্টর প্রযুক্তি এবং গ্লাস ডোর। এটিএস রেদিরেক্ট কুলিং সিস্টেম রেফ্রিজারেটর পাশাপাশি এটাও পরিবেশ বান্ধব একটি রেফ্রিজারেটর। এটার দাম ধরা হয়েছে 39 হাজার 300 টাকা।  

WFE-3E8-GDXX-XX মডেলের দাম এবং স্পেসিফিকেশন 

নান্দনিক ডিজাইনের কারণে এই ফ্রিজটির যে কারো পছন্দ হওয়ার কথা। আধুনিক প্রযুক্তি এবং অসাধারণ ডিজাইনের দরজার কারণে যে কেউ এই ফ্রিজটির প্রতি দুর্বল হয়ে পড়বে। এটি একটি ন্যানোপ্রযুক্তির  ফ্রিজ। পরিবেশ বান্ধব এবং টেম্পার্ড গ্লাস রয়েছে এটিতে । অন্যান্য ফ্রিজের মতো এটিও একটি দিরেক্ট কুলিং সিস্টেম রেফ্রিজারেটর যার মোট আয়তন 356 লিটার এবং ধারণক্ষমতা হচ্ছে 345 লিটার। সেই সাথে এই ফ্রিজটির দাম ধরা হয়েছে 36 হাজার 350 টাকা । 

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ছোট বড় মাঝারি সব সাইজের

WFC-3D8-GDEH-DD (Inverter) মডেলের ফ্রিজের দাম এবং অন্যান্য তথ্য 

নতুন মডেলের যত ফ্রেন্ড আছে তার মধ্যে সম্পূর্ণ নতুন এবং আনকমন ডিজাইনের শেষ হচ্ছে এটি। অন্যান্য  ফ্রিজের তুলনায় এটিও দেখতে খুবই আকর্ষণীয়। অনন্য ডিজাইনের কারণে আপনার এই পিচ্চি দেখলেই ক্রয় করতে ইচ্ছা করবে । 

এফবি তে অন্যগুলোর মতো বিশেষ টেকনোলজি দিয়ে তৈরি।  আর এটাতে রয়েছে এস্পেশাল মেনু হেলথকেয়ার সিস্টেম । অন্যান্য প্রেমিয়াম কোয়ালিটি ফ্রিজের মতো এটা তে ব্যবহার করা হয় তার গ্লাস জল সেই সাথে রয়েছে ইন্তেলিজেন্ট ইনভেন্টর প্রাইস এবং ডিরেক্ট কুলিং সিস্টেম। এটির দাম ধরা হয়েছে 39 হাজার 990 টাকা। 

WFB-2E4-GDSH-XX  দাম এবং অন্যান্য তথ্য 

এটি একটি স্মার্ট লুকিং রেফ্রিজারেটর । আকর্ষণীয় ডিজাইনের কারনে যে কারো নজর কাড়তে সক্ষম হবে এটি।  কারন এটার ডোর ডিজাইন টা অসাধারন।  যদিও আগেকার দিনের রেফ্রিজারেটর গুলো এত সুন্দর ডিজাইন করতে পারত না।  এলিগেন কালার এবং স্মার্ট লুকিং গ্লাস ডোরের কারণেই এই ফ্রিজটির অনন্য ডিজাইন বলে স্বীকৃতি। এটি একটি 268 লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন রেফ্রিজারেটর । এবং এদের দাম ধরা হয়েছে 31 হাজার চারশত টাকা। 

 ওয়ালটনের মাঝারি সাইজের এবং মিডিয়াম প্রাইসের ফ্রিজের তালিকা 

এবার আমরা ওয়ালটনের মাঝারি সাইজের রেফ্রিজারেটর গুলোর দাম সম্পর্কে জানব। মাঝিরে দামের মধ্যে মাঝারি সাইজের ফ্রিজ গুলো খুবই অসাধারণ । যারা মাঝারি সাইজের ফ্রিজ নিতে চাচ্ছেন তাদের জন্য এখানে বেশ কিছু  ফ্রিজের তালিকা লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। বেশি কথা না বলে সেগুলো দেখে নাই ভালো হবে। 

WFB-2E4-GDXX-XX মডেলের ফ্রিজের দাম এবং অন্যান্য তথ্য 

অসাধারণ ডিজাইন এবং কালার ফুল হওয়ার কারণে এটি ও অন্যান্য পেজের মধ্যে ছবি ভালো একটি ফ্রি হলে আমাদের ধারণা।  নিম্নে এটি সম্পর্কে সংক্ষেপে কিছু তথ্য তুলে ধরা হলো। 
  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFB-2E4-GDXX-XX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R134a / R600a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220V-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 18.25 kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা: 254 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3 
  • দাম : Tk. 29,650

WFC-3F5-GDEL-XX মডেলের ফ্রিজ এর দাম এবং স্পেসিফিকেশন 

অনন্য ডিজাইনের ফ্রিজ গুলোর মধ্যে এটি অন্যতম একটি ফ্রিজ । এটির গ্লাস ডোর খুবই আকর্ষণীয় দেখতে। মাঝারি সাইজের ফ্রিজ নিতে চাইলে চোখ বন্ধ করে এটি নেওয়া যেতে পারে। এই ফ্রিজটির রয়েছে ফাস্ট বোলিং স্পিড,  দীর্ঘ সময় ধরে রাখার ক্ষমতা,  ন্যানো টেকনোলজি,  ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তি।  আরো কিছু তথ্য নিচে দেওয়া হল -

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ছোট বড় মাঝারি সব সাইজের

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFC-3F5-GDEL-XX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R600a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 70.5/78 ± 2
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা:  250 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3 
  • দাম : Tk. 28,500

WFB-2B6-GDEL-DD এটি একটি নতুন মডেলের ফ্রিজ 

ওয়ালটনের নতুন ফ্রিজ এর মডেল গুলোর মধ্যে এটি অন্যতম।  অনেক সময় আমরা নতুন মডেলের নতুন প্রযুক্তির পেজগুলো নিতে চাই সে ক্ষেত্রে যেহেতু এটি নতুন মডেলের ফ্রিজ তাই এটি একবার দেখে নিতে পারেন। 

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFB-2B6-GDEL-DD
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R600a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 59 ± 2 Kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা:  252 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3 
  • দাম : Tk. 32,200

WFB-2B3-GDEL-XX এটি আরও একটি আকর্ষণীয় ডিজাইনের ফ্রিজ 

লাল রঙের আকর্ষণীয় ডিজাইনের ফ্রিজ দেখতে চাইলে এটি অন্যতম।  অনেকেরই লাল রং বেশ ভালো পছন্দ তাদের জন্য ওয়ালটন এর এই  ফ্রিজটি অসাধারণ হতে পারে। এটির দাম এবং অন্যান্য তথ্য চলুন জেনে নিই। 

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFB-2B3-GDEL-XX 
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R600a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 140V-260V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 56 ± 2 Kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা:  223 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3 
  • দাম : Tk. 26,750

ওয়ালটনের ছোট সাইজের এবং কম দামের ফ্রিজ এর তালিকা 

ফ্রিজের ক্ষেত্রে ওয়ালটন সর্বসেরা কারণ তাদের ছোট থেকে শুরু করে ছোট বিভিন্ন সাইজের দেশ রয়েছে।  একদম ছোট সাইজের স্মস কিন্তে চাইলে ওয়ালটন অনন্য একটি ব্র্যান্ড।   এখন আমরা ওয়ালটনের সবচেয়ে ছোট সাইজের কথা বলব। ওয়ালটনের ছোট সাইজের ফ্রিজ গুলোর মধ্যে অল্প কিছু ডিজাইনের ফ্রিজের তালিকা এখানে প্রকাশ করা হবে।  সবগুলো মডেল দেখতে চাইলে আপনাকে ওয়ালটন এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে। 

WFO-1X1-RXXX-XX মডেলের ফ্রিজ টিনিয়ে প্রথমে কথা বলব 

ছোট সাইজের ফ্রিজের মধ্যে এটি অন্যতম। যারা ছোট আকৃতির ফ্রিজ কিনতে চাচ্ছে তাদের জন্য এটা  দারুন একটা ফ্রিজ হতে পারে। এটি একটি 101 লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন ফ্রিজ এবং দাম হাতের নাগালে।  এটাতে তিনটি ট্রাক রয়েছে পাশাপাশি বোতল রাখার জায়গা এবং ডিম রাখার জায়গা রয়েছে।  সেইসাথে দিরেক্ট কুলিং সিস্টেম রয়েছে যেটাতে মাছ-মাংস রাখা যাবে। 

ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ছোট বড় মাঝারি সব সাইজের

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFO-1X1-RXXX-XX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R600a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 140V-260V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 25.55 ± 2 Kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা:  101 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • ফোমিং ডেনসিটি: Min.32g/m3 
  • দাম : Tk. 13,550

WFD-1B6-RXXX মডেলের ফ্রিজের দাম এবং অন্যান্য তথ্য 

ছোট আকৃতির ফ্রিজের মধ্যে ওয়ালটনের এটি আরেকটি অন্যতম সিরিজ জেতার ধারণক্ষমতা হচ্ছে 132 লিটার।  এতে রয়েছে দুইটি দরজা । এটি একটি দিরেক্ট কুলিং সিস্টেম ফ্রিজ। ছোট ফ্রিজ হলেও এটাতে বেশ ভালোই জায়গা রয়েছে। মাছ মাংস রাখার জন্য আলাদা জায়গা রয়েছে পাশাপাশি কোলড্রিংস দিন শাক সবজি রাখার  আলাদা  জায়গা রয়েছে। 

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFD-1B6-RXXX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R600a / R134a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 38 ± 2 Kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা:  132 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • দাম : Tk. 18,200


WFD-1B6-GDEL-XX ওয়ালটনের ছোট সাইজের মধ্যে অসাধারণ 

এটি একটি দিরেক্ট কুলিং সিস্টেমের ফ্রিজ পাশাপাশি এটাতে ধারণ ক্ষমতা রয়েছে 132 লিটার । ছোট ফ্রিজ গুলোর মধ্যে এটার ডিজাইন খুবই আধুনিক।  কারণ এটিতে রয়েছে গ্লাস ডোর যেটা আধুনিক ডিজাইনের বেলায় অসাধারণ লাগে । সেই সাথে এই ফ্রিজ এর অনেকগুলো কালার ভেরিয়েন্ট রয়েছে।

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFD-1B6-RXXX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R600a / R134a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 38 ± 2 Kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা:  132 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • দাম : Tk. 19,500

 

WFA-1N3-GDES-XX ওয়ালটনের ছোট সাইজের মধ্যে অসাধারণ 

ওয়ালটনের নতুন ফ্রিজ এর মডেল গুলোর মধ্যে এটি অন্যতম।  অনেক সময় আমরা নতুন মডেলের নতুন প্রযুক্তির পেজগুলো নিতে চাই সে ক্ষেত্রে যেহেতু এটি নতুন মডেলের ফ্রিজ তাই এটি একবার দেখে নিতে পারেন। 

  • ব্র্যান্ডের নাম : ওয়ালটন 
  • ফ্রিজের মডেল : WFA-1N3-GDES-XX
  • কম্প্রেসার : RSCR 
  • রেফ্রিজারেন্ট : R600a / R134a
  • কুলিং টাইপ: Direct Cool
  • ফ্রিজ টাইপ: Frost
  •  কনডেনসার: 100% Copper
  •  ভোল্টেজ: 220-240V
  •  ফ্রিকোয়েন্সি:  50Hz
  • ওজন : 45 ± 2 Kg
  • প্রকৃত ধারণক্ষমতা:  193 Ltr
  • টেকনোলজি:  ওয়ালটন হাইটেক মেড ইন বাংলাদেশ 
  • M/C: Hennecke (Germany) 
  • দাম : Tk. 20,750

৩ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন  WFO-JET-RXXX-XX ফ্রিজ  ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১০, ৯৯০ টাকা

৪ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WFO-1X1-RXXX-XX ফ্রিজ   ১১৫ লিটার ৪ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন WFD-1B6-MBXX ফ্রিজ ১৩২ লিটার ৪ সেফটি ১৮,২০০ টাকা
ওয়ালটন WFD-1B6-GDEL-XX  ফ্রিজ ১৩২ লিটার ৪ সেফটি ১৯,৫০০ টাকা

৫ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WFD-1D4-RXXX-XX ফ্রিজ   ১৫৭ লিটার ৫ সেফটি ১৯,৩৪০ টাকা
ওয়ালটন  WFD-1D4-GDEL-XX ফ্রিজ ১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা

৭ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WFA-2A3-NEXX-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFA-2A3-GDXX-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFB-1H5-ELEXX-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFA-2A3-GDEL-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFA-2B0-GDXX-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন WFA-2B0-GDEL-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFA-1H5-GDXX-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা

৮ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WFA-2D4-GDEL-XX ফ্রিজ  ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFA-2D4-GDEL-US  ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFB-2E0-EGEL-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFB-2B6-GDXX-XX ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা
ওয়ালটন  ১০১ লিটার ৩ সেফটি ১৩,৫৫০ টাকা

৯ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন  WFE-2H2-GDXX  ফ্রিজ ২৮২ লিটার ৯.৯ সেফটি ২৯,১০০ টাকা
ওয়ালটন  WFB-2E4-GDXX-XX  ফ্রিজ ১০১ লিটার ৩ সেফটি ২৯,৬৫০ টাকা

১০ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WFC-3X7-GDXX-XX ফ্রিজ   ৩০৭ লিটার ১০.৮ সেফটি ৩১,৫০০ টাকা
ওয়ালটন  WFE-3X9-GDEL-XX ফ্রিজ ৩০৯ লিটার ১০.৯ সেফটি ৩৩,৭৫০ টাকা

১১ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন  WFE-3B0-GDEL-XX ফ্রিজ  ৩১৬ লিটার ১১.১ সেফটি ৩০,৭৫০ টাকা
ওয়ালটন  EFC-3A7-GDNE-XX ফ্রিজ ৩৩৮ লিটার ১১.৯ সেফটি ৩২,২০০ টাকা
ওয়ালটন WFE-2B0-GDEL-XX ফ্রিজ ৩১৪ লিটার ১১ সেফটি ৩৩,২৫০ টাকা

১২ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন  WFE-3B0-GDEL-XX ফ্রিজ  ৩৪১ লিটার ১২ সেফটি ৩৪,২৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFE-3E8-ELEX-XX ফ্রিজ ৩৫৮ লিটার ১২.৬ সেফটি ৩৬,২৫০ টাকা
ওয়ালটন  WFC-3D8-GDEL-XX ফ্রিজ ৩৪৮ লিটার ১২.২ সেফটি ৩৬,৫০০ টাকা

১৩ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WFC-3F5-GDXX-XX  ফ্রিজ ৩৮০ লিটার ১৩.৪ সেফটি ৩৭,০০০ টাকা
ওয়ালটন  WFC-3F5-GDXX-XX  ফ্রিজ ৩৮০ লিটার ১৩.৪ সেফটি ৩৯,৩০০ টাকা
ওয়ালটন  WFC-3F5-GDEL-XX ফ্রিজ ৩৮০ লিটার ১৩.৪ সেফটি ৩৯,৯০০ টাকা
ওয়ালটন  WFC-3F5-GDNE-XX ফ্রিজ ৩৮০ লিটার ১৩.৪ সেফটি ৪০,৩৯০ টাকা

১৪ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন NW670-3I6  ফ্রিজ ৩৯৬ লিটার ১৪ সেফটি ৩৭,০০০ টাকা
ওয়ালটন  WBQ-4D0-TDXX-XX ফ্রিজ ৩৯৬ লিটার ১৪ সেফটি ৫৯,৯০০ টাকা
ওয়ালটন  WNK-3N6-0101-CDXX-XX ফ্রিজ  ৩৯৬ লিটার ১৪ সেফটি ৪১,৯০০ টাকা

১৫ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WNH-4C0-RXXX-XX ফ্রিজ   ৪৩০ লিটার ১৫ সেফটি ৪৫,৯৯০ টাকা
ওয়ালটন  WNH-4C0-HDSR-XX ফ্রিজ ৪৩০ লিটার ১৫ সেফটি ৫৯,৯০০ টাকা

১৮ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WNJ-5A2-RXXX-XX ফ্রিজ   ৫১২ লিটার ১৮ সেফটি ৪৯,২০০ টাকা
ওয়ালটন  WNJ-5B5-KPXX-XX  ফ্রিজ ৫২৬ লিটার ১৮.৫ সেফটি ৫৪,৯০০ টাকা
ওয়ালটন  NWI-6A9-GDSD-DD  ফ্রিজ ৬১৯ লিটার ১৮.৩ সেফটি ৭৯,৯০০ টাকা

১৯ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন  WNJ-5E5-RXXX-XX ফ্রিজ ৫৫৫ লিটার ১৯.৮ সেফটি ৫২,২০০ টাকা
ওয়ালটন  WNI-5F3-GDEL-XX ফ্রিজ ৫৬৩ লিটার ১৯.৮ সেফটি ৬৪,৯০০ টাকা
ওয়ালটন  WNI-5F3-GDLEL-XX ফ্রিজ ৫৬৩ লিটার ১৯.৮ সেফটি ৬৪,৯০০ টাকা

২০ সেফটি ওয়ালটন ফ্রিজের দাম ২০২১

মডেল ধারণ ক্ষমতা সেফটি দাম (টাকা)
ওয়ালটন WNJ-5H5-RXXX-XX ফ্রিজ    ৫৮৫ লিটার ২০.৬ সেফটি ৫৩,৫০০ টাকা

কেন ওয়ালটন ফ্রিজ বাজারের সেরা ? 

ওয়ালটন হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্র্যান্ড যারা সারা বাংলাদেশে ফ্রিজ উৎপাদন এবং বিপণনের ক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছে।  তার একটাই কারন তা হচ্ছে স্বল্প মূল্যে অধিক গুণগত মানসম্পন্ন পণ্য সরবরাহ করা।  ওয়ালটন ফ্রিজে আধুনিক টেকনোলজির ব্যবহার করা হয় যার ফলে বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে ওয়ালটন ফ্রিজ দেশবাসীকে দিচ্ছে গুণগত মানের নিশ্চয়তা। ওয়ালটন কি ধরনের টেকনোলজি ব্যবহার করে সেটা জানলে আমাদের বুঝতে আরও সুবিধা  হবে কেন ওয়ালটন বাজারের সেরা। 

ওয়ালটন ব্যবহার করে ইনভার্টার টেকনোলজি 

আধুনিক প্রযুক্তি গুলোর মধ্যে ইনভার্টার টেকনোলোজি অন্যতম একটি প্রযুক্তি।  ইনভার্টার টেকনোলোজি হচ্ছে একটি আধুনিক ফ্রিজের প্রাণ। কেন ইনভার্টার টেকনোলজি একটি ফ্রিজের প্রাণ?  কারণ এই প্রযুক্তি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী এবং বিদ্যুতের ভোল্টেজ ওঠানামার সমস্যাগুলো থেকে ফ্রিজকে রক্ষা করে। এতে রয়েছে সিএফসি এবং এইচএসসি গ্যাস মুক্ত গ্রীন গ্যাস r600a রেফ্রিজারেন্ট যা পরিবেশকে সুরক্ষিত রাখার পাশাপাশি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের ক্ষেত্রে 10% হারে বিদ্যুৎ সাশ্রয় করে। এই ওয়ালটন ফ্রিজের ইনভার্টার প্রযুক্তিতে মাদারবোর্ডে রয়েছে বিশেষ ধরনের মাইক্রোপ্রসেসর যার মাধ্যমে কম্প্রেসার এর গতি নিয়ন্ত্রিত হয় ফ্রিজের ভিতরে নির্দিষ্ট তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং এর ফলে প্রয়োজন অনুযায়ী ফ্রিজ বন্ধ অথবা চালু হয় পাশাপাশি কোন গতিতে কম্প্রেসার চলে যার ফলে প্রায় 50 শতাংশ বিদ্যুৎ খরচ সাশ্রয় করা সম্ভব হয়। 

ইনভার্টার প্রযুক্তি এবং ইন্ডাকশন প্রযুক্তি এই দুইটার মধ্যে ইনভার্টেড প্রযুক্তির মাধ্যমে কম্প্রেসার চালু হতে প্রায় ৮ থেকে ১০ গুণ কম বিদ্যুৎ লাগে এবং এই ফ্রিজ কম বিদ্যুতে চলতে পারে । যদি বাংলাদেশের প্রত্যেক ঘরে ঘরে ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রিজ ব্যবহার করা হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে প্রতি ফ্রিজে 50 পার্সেন্ট হারে বিদ্যুৎ খরচ সাশ্রয় হবে যা জাতীয় বিদ্যুতের অপচয় রোধে অনেক বেশি ভূমিকা পালন করবে।  পাশাপাশি ব্যক্তি পর্যায়ে প্রত্যেকের বিদ্যুৎ খরচের দিক থেকে সাশ্রয়ী হতে পারবে। তাই এদিক থেকে আমরা বলতে পারি যেহেতু ওয়ালটন ইনভার্টার প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাই নিঃসন্দেহে এই ফ্রিজ পরিবেশের জন্য এবং ক্রেতাদের জন্য ভালো হবে। 

ন্যানো কপার বডি সম্বলিত ওয়ালটন ফ্রিজ 

ওয়ালটন ফ্রিজে ব্যবহার করা হয় ন্যানো কপার বডি যেটা খাবারকে দীর্ঘ সময় সতেজ রাখতে সক্ষম।  আমরা ফ্রিজ ব্যবহার করি সাধারনত কর্মব্যস্ত জীবনে একটু আরামের জন্য সেটা কিভাবে যদি আমরা আমাদের খাবারকে সংরক্ষণ করে দীর্ঘদিন খেতে পারি তাহলে কর্মব্যস্ত জীবনে অনেকটাই আরাম পাওয়া সম্ভব।  রান্না করা খাবার অথবা শাকসবজি ফলমূল ইত্যাদি দীর্ঘদিন ধরে সংরক্ষণ করে খেতে পারলে আমাদের যেমন সময় বাঁচবে পাশাপাশি আমরা সংরক্ষণের ফলাফলটা ভোগ করতে পারব । 

ন্যানো কপার বডি থাকলে কি হয় আর না থাকলে কি হয় ? 

রোগ সংক্রামক ব্যাকটেরিয়ার কোষ এ সেল মেমব্রেন এবং নিউক্লিয়াস রয়েছে সেইসাথে এতে রয়েছে নেগেটিভ আই ও এন প্রপার্টি কিন্তু ওয়ালটনের রয়েছে পজিটিভ আয়ু অ্যান্ড প্রপার্টি।  এর ফলে সংগ্রাম নাম যখনই এই ফ্রিজের ন্যানো সিলভার পার্টিকেল তখন ঐ ব্যাকটেরিয়ার সেল মেমব্রেন ভেঙ্গে যায়।  যার ফলে সেসব সংক্রমণ ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস হয়ে যায় ফলে খাবার দীর্ঘক্ষন নষ্ট হওয়ার ঝুঁকি থেকে রক্ষা পায়। তাই ফ্রিজের মধ্যে খাবারকে দীর্ঘক্ষন ফ্রেশ রাখার জন্য ন্যানো কপার বডি থাকা অত্যাবশ্যক। 

আকর্ষণীয় ডিজাইন সম্বলিত ওয়ালটন ফ্রিজ 

ডিজাইনের দিকে নজর দিতে হবে অবশ্যই কেননা ফ্রিজ এখন শুধুমাত্র খাবার সংরক্ষণ এর বাক্স নয় পাশাপাশি এটি ঘরকে সৌন্দর্যবর্ধনে সহায়তা করে।  তাই একটি ফ্রিজের টেকনোলজির দিক থেকে উন্নত হওয়ার পাশাপাশি ডিজাইনের দিক থেকেও আকর্ষণীয় হওয়া প্রয়োজন।  সে দিক থেকে ওয়ালটন এগিয়ে রয়েছে সবার চেয়ে বেশি।  ওয়ালটনে ব্যবহার করা হয়েছে নান্দনিক সব ডিজাইন এবং আধুনিকতার ছোঁয়া।  বিশ্ব পরিমণ্ডলে আধুনিক সব ডিজাইনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ওয়ালটনের এগিয়ে রয়েছে সবার সাথে সমান হারে। 

অধিক জায়গা এবং দীর্ঘ সময় খাবার ফ্রেশ রাখার নিশ্চয়তা

 যেহেতু ওয়ালটন ফ্রিজে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে তাই এটাতে দীর্ঘক্ষন সময় ধরে খাবার থাকার নিশ্চয়তা রয়েছে। ওয়ালটনের আগেকার ডিজাইনের ফ্রিজের তুলনায় বর্তমান ডিজাইনের ফ্রিজ গুলোতে প্রচুর চাহিদা রয়েছে। যার ফলে একটা ফ্রিজের মধ্যে যথেষ্ট পরিমাণ খাবার ফলমূল-শাকসবজি সংরক্ষণ করা সম্ভব। 
শেষ কথা 

শেষ কথা একটাই সাধ্যের মধ্যে ভালো মানের ফ্রিজ কিনতে চাইলে অবশ্যই নিজের বুদ্ধি বিবেচনা কে কাজে লাগাতে হবে । সাশ্রয়ী মূল্যের ফ্রিজ কিনতে চাইলে অবশ্যই আপনাকে যাচাই-বাছাই করতে হবে।  এক্ষেত্রে ওয়ালটন বেশ এগিয়ে রয়েছে তবে বাংলাদেশে আরো কিছু ব্র্যান্ডের পেস্ট পাওয়া যায় সেগুলো আপনি বিবেচনায় রাখতে পারেন।  যেমন মার্সেল,  যমুনা,  মিনিস্টার এগুলো দেশি ব্র্যান্ড তাই এদের প্রোডাক্ট এর দামও কম।

 শেষ কথা 

যেহেতু কষ্টের টাকায় একটা প্রোডাক্ট কিনতে যাচ্ছেন অবশ্যই যাচাই-বাছাই করে একটা ভালো মানের পণ্য কেনার চেষ্টা করবেন।  প্রয়োজনে ইন্টারনেট আরও বেশি রিসার্চ করে তারপর মার্কেট থেকে ফ্রিজ কিনবেন। প্রয়োজনে যারা পীর সম্পর্কে ভালো জ্ঞান রাখে তাদেরকে নিয়ে অথবা তাদের সঙ্গে পরামর্শ করে প্রিস কিনবেন।  যাকে নিয়ে ফ্রিজ কিনতে যাবেন অবশ্যই খেয়াল রাখবেন সে আসলেই কি ফ্রিজ সম্পর্কে জ্ঞান রাখে কিনা।  আজকের মতো এখানেই শেষ করছি । 

কমেন্ট করুন

0 Comments