বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশে পেমেন্ট

earn money by writing bangla article

আপনি জানেন কি বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় বিকাশে পেমেন্ট নিয়ে ইনকাম করার ব্যবস্থা রয়েছে?  আপনি যদি সপ্তাহে 2 ঘন্টা অথবা প্রতিদিন 2 ঘন্টা সময় লাগে তাহলে এখান থেকে একটা ভালো ইনকাম নিতে পারবেন? আপনি যদি বাংলায় আর্টিকেল লেখালেখি করে আয় করার সাইট খোঁজ করে থাকেন তবে এখন ঘরে বসে বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করতে  পারবেন। 

যা ইনকাম হবে তা বিকাশের মাধ্যমে সহজেই পেমেন্ট পাবেন।  যদিও বাংলা আর্টিকেল লিখে ইংরেজি লেখার মতো অনেক বেশি হয় না,  তবে শখের কাজ করে যদি সপ্তাহের ইন্টারনেট কল তো উঠানো যায় তাহলে মন্দ কি,  তাইনা। 

এটা এমন একটা আর্টিকেল লিখে আয় করার ওয়েবসাইট যেখানে,  লেখকদের লেখা আর্টিকেল তাদের নাম,  বায়োগ্রাফি এবং ছবি সহ প্রকাশ করা হয়।  কোনটি পাওয়া পাওয়ার সাথে সাথে নিজের ব্লগার প্রযুক্তিগত পাশাপাশি আপনার নিজের একটা পোর্টফোলিও তৈরি হয়। 

যদি ভালো লিখতে পারবেন বা পারেন এখানে লেখা জমা দেওয়ার সুবাদে আরো অন্যান্য জায়গা থেকে লেখার জন্য অফার পেতে পারেন।  বাংলা কনটেন্ট আর্টিকেল রাইটিং জব 

বাংলা আর্টিকেল লিখে কেমন আয় করা সম্ভব 

যদি আপনি আমাদের সাইটে লেখালেখি করেন তাহলে প্রতিটি লেখার জন্য সাথে সাথে বিকাশে পেমেন্ট করা  হয়।  700 শব্দের জন্য 30 টাকা এবং 1000 শব্দের জন্য 50 টাকা প্রদান করা হয়।  মনে রাখবেন শব্দ সংখ্যা 700 এর নিচে হলে লেখা প্রকাশ করা হবে না।  যদি আর্টিকেল সংখ্যা এক হাজারের বেশি হয় তবে সেই অনুপাতে পেমেন্টের হার বৃদ্ধি পাবে যেমন পনেরশো শব্দের জন্য 75 টাকা এবং 2007 এর জন্য 100 টাকা প্রদান করা হয়। 

আরেকটা কথা উল্লেখ করতে চাই যদি,  আর্টিকেল লেখার মান ভালো হয় তাহলে প্রতি পেমেন্ট এর সাথে অতিরিক্ত কিছু বোনাস দেয়া হবে। 

আপনি যে আর্টিকেল লিখে জমা দেবেন সেটা যোগ দিয়ে পরিপূর্ণ ফরমেটিং করার থাকে যেমন,  ছবি যুক্ত করা, ইন্টারনাল লিংক  তাহলে আমাদের অনেক কাজ কমে যাবে লেখাটির দ্রুত প্রকাশ করা যাবে। 

প্রশ্নঃ  দিনে কয়টি আর্টিকেল লিখে সাবমিট করতে পারব?

আমরা কোন বাউন্ডারি দেইনি,  আপনার যত খুশি লিখে সাবমিট করতে পারবেন।  তবে এডিটিং ছাড়া কোন আর্টিকেল আমরা প্রকাশ করি না।  একটা আর্টিকেল ফরমেটিং করে প্রকাশ করতে একটু সময় ব্যাপার রয়েছে।  তাই প্রতি সপ্তাহে 5 থেকে 7 এর বেশি আর্টিকেল প্রকাশ করা সম্ভব হয়না। 

প্রশ্নঃ  টাকা জমা রাখার উপায় আছে কি? 

প্রতিদিন যতগুলো আর্টিকেল পাবলিশ করা হোক না কেন পেমেন্ট সাথে সাথে প্রদান করা হবে।   আমাদের কাছে টাকা জমানোর পর কোন অপশন নেই। 

প্রশ্নঃ আর্টিকেল সিরিয়াল অনুযায়ী প্রকাশ হবে কিনা?

 আমরা সর্বোচ্চ কোয়ালিটি সম্পন্ন  আর্টিকেল গুলোকে সর্বাধিক প্রাধান্য দেই।  সে দিক থেকে যে আর্টিকেল এর মান সবচেয়ে ভালো হবে সেগুলো আগে প্রচার করা হবে।  মান এর পাশাপাশি ইউনিক,  এসইও ফ্রেন্ডলি, ডিমান্ডিং   লেখা দ্রুত পাবলিশ করা হয়।  কোয়ালিটি মেইনটেইন করার জন্য আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করি।  কোয়ালিটি দিক থেকে ভাল কনটেন্ট জমা দিতে পারলে আপনার লেখার মান ভালো হলে আমাদের স্পেশালিস্ট আপনাকে স্থান দেয়া হবে। 

প্রশ্নঃ আর্টিকেল লেখার সম্মানে কিভাবে চাইবো ? 

প্রত্যেকটি লেখা প্রকাশ হওয়ার সাথে সাথে আমরা পেমেন্ট করে থাকি।  লেখা প্রকাশ হওয়ার সাথে সাথে আমরা ফেসবুক এবং টুইটারে শেয়ার করি। আপনার লেখা প্রকাশিত হলে আমাদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করা পোস্ট টি আপনার টাইমলাইনে শেয়ার করুন।  স্ক্রিনশট নিয়ে বিকাশ নাম্বার সহ আমাদের ফেসবুক পেজ এ যোগাযোগ করুন।  যত দ্রুত সম্ভব আমরা আপনার পেমেন্ট দেওয়ার চেষ্টা করি।  এক্ষেত্রে হয়তো সর্বোচ্চ দুই ঘণ্টার মতো সময় লাগবে ইনশাআল্লাহ। 

কিভাবে সরল মানুষ ডটকমে লেখক হিসেবে যোগ দিব? 

সরল মানুষ ডটকম একটি প্রসিদ্ধ বাংলা ব্লগ সাইট।  এখানে অন্যান্য ব্লগ এর মত ইচ্ছামতো যেকোনো লেখা প্রকাশ করা হয় না।  আমরা কোয়ালিটি,  লেখায় ব্যবহৃত শব্দ মার্জিত ভাবে প্রকাশ করার চেষ্টা করি। আমাদের অনেক লেখকের প্রয়োজন কিন্তু কোন অবিশ্বস্ত লেখক এবং লো কোয়ালিটি আর্টিকেল এর প্রয়োজন নেই। 

সর্বনিম্ন কলেজ স্টুডেন্ট হলে আপনি আমাদের সরল মানুষ ডটকম ব্লগে লেখক হিসেবে যোগদান করতে পারবেন।  আর বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রদের কে আমরা অনেক বেশি মূল্যায়ন করি। 

আপনার ফেসবুক আইডিটি অরিজিনাল হতে হবে।  কোন ফেক আইডি থেকে লেখা গ্রহণ করা হয়না। 

 ফেসবুক আইডি লক থাকলে আপনাকে পারমিশন দেওয়া হবে না।  মেয়েদের ক্ষেত্রে ফেসবুক আইডি লক থাকলে সাময়িক সময়ের জন্য আনলক করে দিতে হবে। 

আপনি সরল মানুষ ডটকম ব্লগ লিখে আয় করতে চাইলে প্রথমে আমাদেরকে ফেসবুক পেজের মাধ্যমে মেসেজ দিয়ে আবেদন করুন।  তারপর যাচাই-বাছাই করে আপনাকে লেখক হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার চেষ্টা  করা হবে। 

বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার জন্য যা যা প্রয়োজন হবে

লেখালেখি করে আয় করার জন্য তেমন কিছুই প্রয়োজন হয় না যা লাগবে আশা করছি অলরেডি আপনার কাছে তা আছে।  যদি নাই থাকতো তাহলে আপনি কিভাবে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়ছেন।  আমি আপনার হাতে থাকায় স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটারটির কথা বলছি।  লেখালেখি করে আয় করার জন্য যা লাগবে তা হল

 একটি কম্পিউটার  অথবা একটি স্মার্ট ফোন

  • কম্পিউটারে লিখতে চাইলে বাংলা টাইপিং জানতে হবে  অথবা গুগোল ডকস এর মাধ্যমে ভয়েস টাইপিং করে লেখা জমা দিতে পারবেন
  • ইংরেজি আর্টিকেল পড়ে বুঝতে পারতে হবে 
  • আরেকটা বিষয় বাংলা আর্টিকেল লেখার সাইট  সরল মানুষ ডটকমে আর্টিকেল প্রকাশ করার জন্য  আর্টিকেলটিকে আপনাকে নিজে নিজেই সাজাতে হবে এবং ছবি,  ট্যাগ,  ক্যাটাগরি ঠিক করে দিতে হবে । 

আর্টিকেল পাবলিশ হওয়ার পূর্বে পালনীয় শর্তাবলী

আপনার লেখাটি সম্পূর্ন ইউনিক হতে হবে(  কোনরকম কপি থাকা যাবে না)

অবশ্যই পুড়বে বাংলায় প্রকাশিত হয়নি এমন টপিক নির্বাচন করার চেষ্টা করবেন

সার্চ ভলিয়ম ন্যূনতম 100 তো থাকতে হবে। 

চেষ্টা করবেন এমন আর্টিকেল লেখার জন্য যেটা বাংলায় কোন ওয়েবসাইটে এখনও প্রকাশিত হয়নি।  তাহলে অনেকেই সেই আর্টিকেল থেকে উপকৃত হবে।  

একটা কথা মনে রাখবেন  আর্টিকেল শতভাগ ইউনিক কিন্তু সার্চ ভলিয়ম নেই সে ধরনের আর্টিকেল আমরা প্রকাশ করব না।  তাই আর্টিকেল লেখার পূর্বে সার্চ ভলিয়ম চেক করে নিন। 

প্রশ্নঃ কিভাবে সার্চ ভলিয়ম চেক করব? 

এটা একটা মূল্যবান প্রশ্ন বিশেষ করে যারা নতুন তাদের ক্ষেত্রে।  একটি ট্রপিক প্রতি মাসে কতবার সার্চ হচ্ছে তা জানার জন্য আমাদেরকে ভিজিট করতে হবে app.neilpatel.com এই ওয়েবসাইটে। সার্চ ভলিয়াম জানার জন্য আমাদের যে কোন কিছু টাইপ করে সার্চ করতে হবে । সার্চ করার পূর্বে ডানপাশে Bengali/Bangladesh সিলেক্ট করে নেবেন। 

বাংলা আর্টিকেল লেখার নিয়ম সম্পর্কে আলোচনা করার সময় এসেছে

  • কপি করা নিষেধঃ লেখা নির্বাচনের সময় যদি আপনার লেখায় একটি লাইন ও কপি করা থাকে সে ক্ষেত্রে আমাদের টিম সেটাকে আর পাবলিশ করবে না। কপি করলে আপনাকে আমাদের টিম থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হবে।  কপি করে লেখার ইচ্ছা থাকলে আগে থেকেই দূরে থাকুন।  একবার নিষিদ্ধ হলে কখনো আমাদের ব্লগে আর্টিকেল লেখার সুযোগ পাবেন না । 
  • টপিকঃ নির্ধারণ করুনঃ  আর্টিকেল লেখার আগে সর্বপ্রথম টপিকঃ নির্ধারণ করে নিন।  তারপর দেখুন যে আপনার নির্বাচিত টপিকটি আমাদের ওয়েবসাইটে রয়েছে কিনা। যদি আপনার নির্বাচিত টপিকটি আমাদের ব্লগে লেখা হয়ে থাকে তাহলে সেই লেখা আমরা নেব না। তবে একটু বুদ্ধি খাটালে ওই রিলেটেড অন্য কোন টপিক এর উপর আলোচনা করে আর্টিকেল লিখতে পারেন। 
  • এবার কিওয়ার্ড নির্বাচন করুনঃ টপিকঃ নির্ধারণ করা  হয়ে গেলে এবার কি ওয়ার্ড নির্বাচনের পালা।  কিবোর্ড হল এমন কিছু শব্দ যেগুলো লিখে আমরা ইন্টারনেটে বিভিন্ন বিষয়ে সার্চ করি। কিওয়ার্ড নির্বাচনের ক্ষেত্রে লম্বা লম্বা কিওয়ার্ডগুলো দিয়ে আর্টিকেল লিখলে খুব সহজে রেঙ্ক করানো যায়। 

অবশ্যই এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে হবে

কিওয়ার্ড রিচার্জের জন্য গুগলকে কাজে লাগাতে পারেন।  আপনি যে বিষয়ে কিওয়ার্ড বের করেছেন সেই বিষয়ে গুগলে সার্চ করলে ওই রিলেটেড আরো প্রচুর কিওয়ার্ড দেখতে পারবেন।  গুগলের প্রথম পেজ এর শেষ অংশ এগুলো দেওয়া থাকে। 

সাজেশন এ আসা কিওয়ার্ডগুলো থেকে ভালো ভালো কিওয়ার্ডগুলো বেছে নিতে হবে।  যদি যদি আমরা কম দামে ভালো ফোন লিখে সার্চ করি তাহলে ওই রিলেটেড আরো বেশ কিছু কিওয়ার্ড দেখতে পাব। সেখান থেকে আরও 2, 3 টি কিওয়ার্ড নিয়ে নিতে হবে। 

এছাড়াও আরও অনেক কিওয়ার্ড রিসার্চ টুল রয়েছে সেগুলো ব্যবহার করেও কিওয়ার্ড নির্বাচন করতে পারেন। 

আর্টিকেল এর ভেতর সঠিকভাবে কিবোর্ড ব্যবহার করুন

কিওয়ার্ড খুঁজে বের করলেই হবে না পাশাপাশি সেটাকে আর্টিকেল এর মধ্যে সঠিকভাবে ব্যবহার করতে হবে। কিওয়ার্ড দিয়ে একটি টাইটেল নির্বাচন করুন যেখানে কিওয়ার্ড প্রথমে থাকবে। তারপর আর্টিকেল লেখা শুরু করুন।  আর্টিকেল কে তিনটি ভাগে ভাগ করতে পারেন

ভূমিকা

মূল আলোচনা

উপসংহার

লেখার সময় ভূমিকাকে তিন থেকে চার প্যারাগ্রাফ শেষ করতে হবে।  প্রতিটি বাক্যকে 8 থেকে 10 শব্দের মধ্যে রাখুন।  অন্যথায় পাঠকের পড়তে কষ্ট হয়।  এরপর প্রত্যেকটা প্যারাগ্রাফ কে দুই থেকে তিন লাইনের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখুন।  তাহলে পাঠকের পড়তে সুবিধা হবে। 

আবারো কিবোর্ড এর ব্যাপারে বলছি,  ভূমিকার মধ্যে প্রথম লাইনে কী-ওয়ার্ডটি রাখার চেষ্টা করুন। ভূমিকার শেষ প্যারাগ্রাফে আরো একবার কী-ওয়ার্ডটি ব্যবহার করতে পারেন। 

এরপর মূল অংশে দুই থেকে তিনবার সাব হেডিং হিসাবে মেইন কি-ওয়ার্ড ব্যবহার করতে পারেন সম্ভব হলে লেখার মাঝে মাঝে আরো দুই-তিন বার করে মেইন কি ওয়ার্ড ব্যবহার করার চেষ্টা করুন। সর্বশেষ উপসংহারে আরো একবার কিওয়ার্ডটি ব্যবহার করুন। 

রিলেটেড কিওয়ার্ড ব্যবহারের নিয়ম

 যখন আমরা গুগলে কিওয়ার্ড রিচার্জ করেছিলাম সেখানে রিলেটেড কিছু কিওয়ার্ড পেয়েছিলাম।  তো সেই রিলেটেড কিওয়ার্ডগুলো আর্টিকেল এর মাঝে মাঝে ব্যবহার করতে পারেন। 

আমরা যদি বাংলাদেশে মোবাইলের প্রাইস কিবোর্ড নির্ধারণ করি তাহলে সেখানে রিলেটেড আরো কিউট হতে পারে এমন স্যামসাং মোবাইলের প্রাইস,  শাওমি মোবাইলের প্রাইস,  কম দামে ভালো মোবাইলের প্রাইস ইত্যাদি।  এধরনের রিলেটেড ওয়ার্ড গুলো আর্টিকেল এর মাঝে মাঝে ব্যবহার করা যেতে পারে। 

এই হলো মোটামুটি ভাবে আমাদের সরল মানুষ ডটকম ব্লগে লেখার নিয়ম।  প্রথম দিকে হয়তো দুই একটা আর্টিকেল লিখতে ঝামেলা মনে হবে কিন্তু পরবর্তীতে এত ঝামেলা  মনে হবে না।  আমরা ইউটিউব চ্যানেলে বাংলায় আর্টিকেল লেখার সবচেয়ে সহজ কৌশল শিখিয়ে দেব।  

যেসকল ক্যাটাগরিতে লিখতে পারবেন

ইতিমধ্যে আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে বেশ কিছু ক্যাটাগরি সংযুক্ত করেছি।  নিম্নে বর্ণিত আর্টিকেল এর ক্যাটাগরি থেকে যে কোন ক্যাটাগরির উপর লিখতে পারেন। 

  • অনলাইন থেকে আয় 
  • টেকনোলজি
  •  ব্লগিং 
  • শিক্ষা 
  • লাইফ স্টাইল 
  • স্বাস্থ্যকথন 

লেখার জন্য টপিক খুঁজবেন যেভাবে

নিচে কিছু ওয়েবসাইটের নামের তালিকা দিয়ে দিচ্ছে এইগুলোতে খুঁজলে আপনি অনলাইনে আয় সম্পর্কিত টপিকগুলো খুঁজে পাবেন । 

  • Incomediary
  • Bufferapp
  • The penny hoarder
  • The balance
  • Entrepreneur
  • Money pantry
  • Sure job

মোবাইল অ্যাপ ক্যাটাগরিতে লিখতে চাইলে নিচে আরও কিছু ওয়েবসাইটের নামের তালিকা দিয়ে দিচ্ছি

  • Android authority 
  • Popular science 
  • Wired 
  • New scientist
  • Google news
  • Discover magazine 

নিচের ওয়েবসাইটের নামের তালিকা থেকে ব্লগিং ক্যাটাগরিতে লেখার টিপস এন্ড ট্রিকস খুঁজে পাবেন 

  • Alexa blog
  • Copy blogger
  • WP beginner
  • Shoutmeloud
  • ProBlogger
  • BloggingBasic
  • SearchEngineJournal

আর্টিকেল কিভাবে জমা দিবেন

আর্টিকেল জমা দেওয়ার জন্য লেখা জমা দিন বাটনে চাপুন অথবা এখানে চাপুন । আমাদের সাইটে প্রতিটি লেখা আপনার ছবি এবং বায়োগ্রাফি সহ প্রচার করা হবে। আপনি আমাদের ওয়েবসাইটের লেখার জন্য পারমিটেড হলে আপনার ইমেইলে একটি ইনভাইটেশন পাঠানো হবে। তাই আপনাকে আগে ব্লগারে একাউন্ট করে নিতে হবে। 

লেখা জমা দিন

শেষ কথা 

আমরা এ পর্যন্ত আর্টিকেল লিখে আয় পেমেন্ট বিকাশ করার মত সাইট সম্পর্কে  জানলাম । আশা করছি আপনি আমাদের সরল মানুষ ডটকম ব্লগে পার্টিসিপেট করবেন। আপনার লেখার অপেক্ষায় রইলাম।  সরল মানুষ ডটকম প্লাটফর্মে লেখা জমা দিন আর নিজেকে মেলে ধরুন সবার মাঝে। 

কমেন্ট করুন

0 Comments