রিয়েলমি GT Neo2 ডিজাইনে সেরা !! তবে ?

Realme GT Neo2 স্মার্টফোনের দাম

Realme GT Neo2 স্মার্টফোনের দাম হচ্ছে বাংলাদেশের বাজারে 39 হাজার 990 অর্থাৎ 40 হাজার টাকা । 

রিয়েলমি প্রেমীদের জন্য রিয়েলমি নিয়ে আলাদা একটি নতুন  ঝলক । এবারের নতুন খরচে সারাদেশ স্মার্টফোনটির নিয়ে এসেছে তার নাম হচ্ছে Realme GT Neo2 । এটি অন্যান্য স্মার্টফোনের তুলনায় ডিজাইনের দিক থেকে অনেক বেশি এগিয়ে রয়েছে।  যেহেতু বর্তমানে প্রায় প্রত্যেকটা বিভাগী ডিজাইনের প্রতি মনোযোগ দিচ্ছে সে দিক থেকে বিবেচনা করলে রিয়েলমি এবার দুর্দান্ত একটা ডিজাইনের স্মার্টফোন উপহার দিতে চলেছে তাদের ভক্তদের কে।  আজকে আমরা রিয়েলমি  Realme GT Neo2 স্মার্টফোনের দাম এবং স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে আলোচনা  করব । 

ডিসপ্লে এবং ডিজাইন

Realme GT Neo2 স্মার্টফোনটির এর রয়েছে 6.62 ইঞ্চি ফুল এইচডি অ্যামোলেড ডিসপ্লে।  যার রেজুলেশন হচ্ছে 1080 x 2400 pixels (398 ppi)। ডিসপ্লে প্রটেকশন এর জন্য ব্যবহার করা হয়েছে করেন গরিলা ৫ গ্লাস। এটা অন্যান্য স্মার্টফোন গুলোর মতই প্রায় একই ধরনের ডিসপ্লে প্রদান করেছে কেননা বর্তমানে প্রায় প্রত্যেকেরই এ ধরনের ডিসপ্লে লক্ষ করা যাচ্ছে তবে এটাতে ফুল এইচডি ডিসপ্লে দিলে আরো ভালো হতো। আরেকটু দুঃখের বিষয় হচ্ছে এই স্মার্টফোনটির সম্পন্ন বডি প্লাস্টিকের তৈরি।  যেহেতু এটি একটি এক্সপেন্সিভ ফোন সে হিসেবে প্লাস্টিক বডি  দেওয়া উচিত হয়নি বলে আমার মনে হয়। 

ক্যামেরা

বরাবরের মতো এবারও জ্ঞান নেই এই স্মার্টফোনটিকে ক্যামেরার দিক থেকে চমক দিয়েছে তাদের ভক্তদের এটাতে রয়েছে সামনের দিকে 16 মেগাপিক্সেল ক্যামেরা।  যেটাতে F/2.5 aperture, 1/3.09″, 1.0µm, HDR & more টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে । এছাড়াও সামনের ক্যামেরা দিয়ে ফুল এইচডি রেজুলেশন ভিডিও করা যাবে। 

Realme GT Neo2 স্মার্টফোনটিকে রয়েছে পেছনের দিকে তিনটি ক্যামেরা।  দেলেতে প্রাথমিক প্রমাণ হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে 64 মেগাপিক্সেল এবং পরবর্তী দুইটি ক্যামেরা যথাক্রমে 8 মেগাপিক্সেল 2 মেগাপিক্সেল। যার একটি হচ্ছে আল্ট্রা ওয়াইড এবং অপরটি হচ্ছে ম্যাক্রো সেনসর ক্যামেরা।  রিয়েলমি দাবি করছে তাদের এই ফোনে ভিডিও রেজুলেশন a4k রেকর্ড করা যাবে। 

প্রফেসর এবং মেমোরি

এটিকে রয়েছে অক্টোবর 3.2  গিগাহার্জ প্রসেসর এবং চিপসেট হিসেবে রয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন 870 প্রসেসর যেটা মোটামুটিভাবে একটা মানসম্পন্ন প্রসেসর বলতে পারি । সেই সাথে এই ফোনটিতে অ্যান্ড্রয়েড ইলেভেন অপারেটিং সিস্টেম চলবে।  যেহেতু এটি একটি হাই রেঞ্জের স্মার্টফোনসহ তো এটাতে সবকিছু ফিচারই একটু ভালো ভালো থাকবে এটাই স্বাভাবিক।  হাই রেঞ্জের স্মার্টফোন হিসেবে এটাতে রয়েছে এর জিবি র্যাম যেটা খুবই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করতে পারবে বলে ধারণা করতে পারি যেহেতু এটাতে রয়েছে ভালো মানের চিপসেট।  এটা এজন্যই বললাম শুধুমাত্র রেম বেশি হলেই হয় না পাশাপাশি প্রসেসর টাও ভাল হতে হয়।  এছাড়া 128 জিবি ইন্টার্নাল মেমোরি তো থাকছেই।  

তবে একটা দুঃখের বিষয় হচ্ছে এটাতে কোন এক্সটার্নাল মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে না।  যেহেতু এই ফোনটিতে 128 জিবি ইন্টারনাল মেমোরি রয়েছে সেহেতু একটা মেমোরি না হলেও চলে।  তবে বিশেষজ্ঞদের মতে এক্সটার্নাল মেমোরি ছাড়া যদি ইন্টার্নাল মেমোরি ব্যবহার করা যায় সে ক্ষেত্রে স্মার্ট ফোনের পারফরম্যান্স বৃদ্ধি পায়।   হয়তো রিয়েলমি এই বিষয়টাকে কাজে লাগাতে চেয়েছে। 

ব্যাটারি এবং অন্যান্য বিষয়

আমরা যেই ফোনে ব্যবহার করি না কেন যদি সেটাতে পর্যাপ্ত পরিমাণ চার্জ না থাকে সে ক্ষেত্রে এত এত ফিচারের গাদি থাকলেও তাতে কোন লাভ নেই।  একটানা দীর্ঘক্ষণ স্ট্যান্ডবাই পারফরম্যান্সের জন্য ব্যাটারীতে হত খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় তাই রিয়েলমি এই ফোনটিতে রেখেছে 5000mh নন রিমুভেবল ব্যাটারি। সেই সাথে রয়েছে 65 ওয়াট এর ফাস্ট চার্জিং চার্জার। যেটা খুব দ্রুত চার্জ করতে সাহায্য করবে। 

Realme GT Neo2 ফোনের ভালো এবং খারাপ দিক গুলো

ফোনটির ভালো দিকগুলো হচ্ছে,  এই ফোনটি 5g সাপোর্ট করে এছাড়াও ফোনের ডিজাইন টি খুবি অ্যাট্রাক্টিভ।  শেষ এমোলেড এইচডি এইচডিআর টেন এবং ভালো মানের ক্যামেরা সেইসাথে ভালো মানের ব্যাটারি।  সেই সঙ্গে আরও দুর্দান্ত বিষয় হচ্ছে যে এটাতে রয়েছে ভালো মানের চিপসেট সেইসঙ্গে ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।  আরো একটু ভালো দিক হচ্ছে যে এটাতে অডিও কোয়ালিটি খুব ভালো্  

এই ফোনটিতে খারাপ দিক গুলোর মধ্যে যা নজরে পড়ার মতো তা হচ্ছে এটাতে কোন 3.5 এম এম নেই। এই ফোনটি প্লাস্টিকের বডি তাই এটাকে খারাপ দিক বলে ধরা দিতে পারে এছাড়াও আরেকটি খারাপ দিক হচ্ছে এটা তো কোন মেমোরি কার্ড স্লট করা যাবে না। 

Reactions

Post a Comment

0 Comments